Wednesday , March 29 2017
Home / জাতীয় / ঐতিহ্যবাহী সাপের খেলা ঝাপান !!

ঐতিহ্যবাহী সাপের খেলা ঝাপান !!

হাজার হাজার দর্শক উপস্থিত। মঞ্চের উপর বেশ কয়েকটি ঝাঁপি। আর তা খুলে দিতেই বাদ্যের তালে তালে বের হয়ে আসছে ভয়ংকর বিষধর সাপ। ফণা তুলে বাদ্যের তালে তালে নেচে চলেছে সেই সাপ। যে সাপ সবচেয়ে ভালো নাচবে সেই হবে বিজয়ী। চিরায়ত বাংলার ঐতিহ্যবাহী এই খেলার নাম ঝাপান।

শনিবার দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত ঝিনাইদহের শৈলকুপার বিএলকে স্কুল প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে এই ঐতিহ্যবাহী খেলা। কয়েক হাজার দর্শকের উপিস্থিতিতে নিজেদের সাপের নৈপুণ্য দেখান সাপুড়েরা।
ঝাঁপি খুলতেই বের হয়ে আসে বিষধর সব সাপ।

কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাওয়া ঝাপান খেলা আবারও ফিরিয়ে আনতে এই উদ্যোগ নেয় শৈলকুপা উপজেলার বিএলকে এলাকাবাসী।

বাদ্যের তালে তালে ঝুড়ি থেকে বেড়িয়ে আসে ভয়ংকর গোখরা সাপ। উপস্থিত শত শত দর্শকের করতালি একটুও বিচলিত করতে পারে না ফণা তোলা এসব নাচিয়েদের।
যেন সাপুড়ের কথামতোই নেচে যাচ্ছে সাপ তিনটি।

মনিবের ইশারা ইঙ্গিত তাকে ঠিক বুঝিয়ে দিয়েছে, শুধু মানুষকে আনন্দ দেওয়ার খেলা নয়, বরং আজ মর্যাদার লড়াই।

ঐতিহ্যবাহী এই সাপ খেলা দেখতে ভিড় করেন হাজারও দর্শক। বাদ পড়েনি নারীরাও। ঢাক আর ঢোলের বাদ্য আর নাচ-গানে সাপুড়েরা দর্শকদের মন ভরিয়ে তোলেন।
৭টি সাপুড়ে দলের শতাধিক সাপের মধ্যে নিজেকে সেরা প্রমাণ করতে প্রতিটি সাপ প্রদর্শন করে নিজেদের আকর্ষণীয় কসরত।

আর এই দুর্লভ দৃশ্য দেখতে দূরদূরান্ত থেকে ছুটে আসেন দর্শনার্থীরা। অনেকে জীবনে প্রথম আবার অনেকে অনেক দিন পর দেখছেন এ খেলা। এই ‘ঝাপান খেলা’ দেখে খুবই আনন্দিত হয় দর্শক।
শৈলকুপার অংশগ্রহণকারী সাপুড়ে লিটন জানান, ‘এটা আমাদের বাপ দাদার পৈত্রিক পেশা। আমার আগে আমার বাবা তার আগে তার বাবা সকলেই সাপ খেলা দেখিয়ে জীবন ধারণ করতেন। আমরা বাংলাদেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত পর্যন্ত সাপ নিয়ে ঘুরে বেড়াই।’

এ ধরনের আয়োজন হলে এলাকার সাপুড়েদের মিলন মেলায় অনেক ভাব বিনিময় ও বিভিন্ন প্রজাতির সাপের খোঁজ খবর পাওয়া যায় বলে জানান বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা সাপুড়েরা।

এ ব্যাপারে আয়োজক সাবেক যুগ্ম-সচিব মীর সাহাব উদ্দিন বলেন, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যকে বর্তমান প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে এই খেলার আয়োজন।

কালের বিবর্তনে লোকাচারের অনেক কিছুই এখন হারিয়ে গেছে। কিন্তু ঝাপান গানের কোনো হেরফের হয়নি। সেই মধ্যযুগ হয়ে একবিংশ শতাব্দীর মানুষের কাছে এখনও সমান জনপ্রিয়তা ধরে রেখেছে এই ঝাপান সাপের খেলা।

About Nitu Sharmin

Check Also

পুকুরে গোসল করতে গিয়ে ধর্ষণ হলেন গৃহবধূ !!

পুকুরে গোসল করতে গিয়ে ধর্ষণ হলেন গৃহবধূ !!

বাড়ির পুকুরে গোসল করতে গিয়েছিলেন গৃহবধূ। পাশের বাড়ির যুবকের লালসার শিকার হলেন ঐ গৃহবধূ। জানা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *